শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪
 

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 ছবি: যুগের কণ্ঠস্বর

ফয়সাল হোসেন লক্ষ্মীপুর, 

লক্ষ্মীপুরে পুলিশের করা দুই মামলায় জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ কারাবন্দি বিএনপির ২৪ নেতাকর্মীর মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।

এসময় কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূঁইয়া ও জেলা বিএনপির সদস্য সচিব সাহাব উদ্দিন সাবুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার প্রতিবাদ জানায় নেতাকর্মীরা।

শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে জেলা ছাত্রদলের ব্যানারে শহর ব্রিজ এলাকা থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে পুরাতন গোহাটা এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। এসময় ফরমায়েশি আদেশে নেতাকর্মীদের কারাবন্দি করা হয়েছে এবং সরকারি বিরোধী বিভিন্ন স্লোগান দেয় বিক্ষুব্ধরা।মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন সিনিয়র নেতারা।

মিছিলে জেলা বিএনপির সদস্য নিজাম উদ্দিন ভূঁইয়া, সদর (পূর্ব) উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মাঈন উদ্দিন চৌধুরী রিয়াজ, লক্ষ্মীপুর পৌর বিএনপির আহ্বায়ক মাহবুবুর রহমান লিটন, চন্দ্রগঞ্জ থানা বিএনপির আহ্বায়ক ভিপি বেলাল হোসেন, সদস্য সচিব আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মহসিন কবির স্বপন, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ, জেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক সৈয়দ রশিদুল হাসান লিংকন, লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আবদুল্লাহ আল খালেদ, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আবদুল আজিজ মিশু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন রাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল হোসেন আকবর ও জেল কৃষকদলের সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির আলম মিশনসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেয়।

জেলা বিএনপির সদস্য নিজাম উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ১৮ জুলাই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কৃষক দল নেতা মো. সজিবকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। এখনো কোনো আসামি ধরতে পারেনি পুলিশ।

একইদিন পুলিশ আমাদের ওপর নির্বিচারে গুলি করেছে। আমাদের ছয়জন নেতাকর্মীর চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। এরপর রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে। আমাদের নেতাকর্মীদের বিনা কারণে কারাবন্দি করা হয়েছে। আমরা অবিলম্বে তাদের মুক্তি চাই। তা না হলে কঠোর কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ জুলাই বিএনপি পদযাত্রা কর্মসূচি চলাকালীন দায়িত্ব পালন কাজে বাধা, পিটিয়ে আহত, বিস্ফোরক ও নাশকতার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৫৫ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৩ হাজার জনের নামে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। দুই মামলাতেই বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও জেলা কমিটির আহ্বায়ক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিকে প্রধান আসামি করা হয়। ১০ সেপ্টেম্বর আদালতে জামিন শুনানি থাকলেও বিএনপি নেতা শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খাঁয়ের ভূঁইয়া, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব সাহাব উদ্দিন সাবু আদালতে উপস্থিত হননি। এতে আদালত তাদের তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। ১০ ও ১১ সেপ্টেম্বর একই মামলায় জামিন নামঞ্জুর করে লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম- আহ্বায়ক হাছিবুর রহমান, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হাসান মাহমুদ ইব্রাহিম ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ ২৫ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) এ মামলায় বিএনপি নেতা হাছিবুর রহমানকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

মন্তব্য

পঠিতসর্বশেষ

এলাকার খবর

Developed By: Dotsilicon